ইউটিউবিং কি?

ইউটিউব মার্কেটিং আসলে কি?
সহজ কথায় YouTube এ ভিডিও আপলোড করে অর্থ উপার্জনের একটি সহজ মাধ্যম। অনেকের মনে হয়তবা প্রশ্ন উঠতে পারে YouTube এ ভিডিও আপলোড করলে কিভাবে অর্থ উপর্জন করা সম্ভব?
একটা জিনিস ভাল করে লক্ষ করবেন আপনি যখন YouTube এ কোন ভিডিও দেখেন তখন বেশীরভাগ ক্ষেত্রে ভিডিও এর নিচের অংশে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন পন্যের বিজ্ঞাপন দেখা যায়। আর এই বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে আপনি আয় করতে পারবেন। আপনার ভিডিও যত বেশী দেখা হবে আপনার একাউন্টে তত বেশী টাকা জমা হবে। অর্থাৎ সহজ কথায় আপনার আপলোড করা ভিডিও এর যত বেশী ভিউ হবে আপনার আয় তত বেশী হবে।
ইউটিউব মার্কেটিং কেন করবেন?
অনলাইন মার্কেটিং করার অনেক উপায় আছে। তার মধ্যে ইউটিউব মার্কেটিং বর্তমানে সবথেকে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এর এত জনপ্রিয়তার অনেকগুলো কারন আছে।
প্রথমত, ইউটিউব মার্কেটিং করলে খুব দ্রুত ট্রাফিক পাওয়া যায়। যেটা একটা ওয়েবসাইটের জন্য অনেক সময়ের ব্যাপার।
আবার একটা সাইটের জন্য আপনি প্রথমেই হোস্টিং আর ডোমেইন এর জন্য টাকা খরচ করতে হবে যেটা নতুনদের জন্য অনিহার কারন। ইউটিউব এ আপনাকে কোন টাকা খরচ করতে হবে না।
আর সবচেয়ে বড় যেই কারনে ইউটিউব মার্কেটিং ইদানিং বেশি জনপ্রিয় তা হচ্ছে এসইও রেঙ্কিং এর বিভিন্ন আপডেটের কারনে যারা রিভিও সাইট দিয়ে মার্কেটিং করে থাকেন তাদের রেঙ্কিং প্রতিনিয়ত ড্রপ করছে কিন্তু ইউটিউব এই প্রভাব থেকে মুক্ত।
আবার, যারা এমন কোন প্রোডাক্ট ক্রয় করার জন্য সিদ্ধান্ত নেন যেটার ডিজাইন বা ব্যাবহারবিধি নিয়ে তারা চিন্তিত তখন তারা সেই পণ্যটি দেখতে কেমন বা এটি কিভাবে ব্যবহার করবে তা জানার জন্য ইউটিউবে প্রবেশ করে আর তাই উন্নত বিশ্বে ইউটিউবে ঢু মারা মানুষের বড় অংশ এর পরেই কিছু না কিছু ক্রয় করে থাকেন। যার কারনে ইউটিউব হচ্ছে ক্রেতাদের ঘাটি।

কিভাবে করবেন ইউটিউব মার্কেটিং?
ইউটিউব মার্কেটিং আমাদের দেশে মোটামুটি নতুন বিধায় ইন্টারনেট প্রশিক্ষন রিসোর্স নেই বললেই চলে। আবার আমরা ফ্রিতে কোন কিছু পেলে তখন সবাই বুঝে না বুঝে সেই দিকে ঝুকে পড়ি যার কারনে সেই বিষয়টায় ব্যপক হারে স্পামিং বেড়ে যায়। তাই এই ব্যপারে যারা অভিজ্ঞ তারা আসলে মানুষকে নিজেদের টিপস বা অভিজ্ঞতা খোলাখুলি দিতে চায় না যেন শুধুমাত্র আগ্রহীরাই এখানে আসে। তবে আপনি যদি ব্যক্তিগতভাবে কোন ইউটিউব মার্কেটারের সাথে পরিচিত থাকেন তবে তার কাছ থেকে সাহায্য নিতে পারেন। আর যদি প্রশিক্ষন নিতে চান তাহলে আমাদের সাথে যোগ দিতে পারেন ।
আমাদের ইউটিউব চ্যানেলের নাম “TechbanglaPro” এখানে আমরা ফ্রিতে সবাইকে ইউটিউব মার্কেটিং শেখাচ্ছি বলতে পারেন এটা আমাদের একটা সখ তাছাড়া আমরা আমাদের ইউটিউব চ্যানেল থেকে ১ টাকা ওঁ ইনকাম করি না আর আপনাদের ও আমাদেরকে কখন ও এক টাকা ও দেয়া লাগবে না আসলে বাংলাদেশ থেকে বেকারত্ব দুর কারা জন্য আমাদের ই চিন্তা ভাবনা আশা করি আমাদের এই ভাবে কাজ আপনারা আমাদের সাথে থাকবেন আমাদের চ্যানেলে সাধারন বিষয় শেখানোর পাশাপাশি নিশ্চিত সফলতার অনেক টিপস শেয়ার করি।
পরিশেষে যা বলতে হয় তা হচ্ছে ইউটিউব মার্কেটিং হচ্ছে অনলাইন মার্কেটিং এর সবথেকে সহজ পদ্ধতি এবং অনলাইন আয়েরও সবথেকে জনপ্রিয় মাধ্যম। অনেক কম সময় দিয়ে আপনি ইউটিউব থেকে আয় করতে পারবেন তবে খেয়াল রাখতে হবে আপনার কাজের মানের উপর এবং কি নিয়ে কাজ করছেন কি দিয়ে কাজ করছেন তার উপর। মনে রাখবেন, আপনি ইউটিউব মার্কেটার হলে ইউটিউব কে স্পাম মুক্ত রাখা আপনার দায়িত্ব। কারন, এটি বিদেশের কাছে আমাদের দেশের মার্কেটারদের মানের একটা যায়গা। ভালো থাকবেন

 

কিছু কথা

কীভাবে ইউটিউব জীবন শুরু করেছিলেন?

২০১২ সাল থেকেই আমার শখ জাগে ভিডিও বানানোর। তখন মোবাইলের পিছনের ভিজিএ ক্যামেরা দিয়ে একা একা ভিডিও করতাম। ইউটিউবে সফলতা পেতে আমার বেশি সময় লাগেনি তার পাশাপাশি বিভিন্ন মার্কেটিং এবং নেটওয়ার্ক এর সাথে টুকটাক কাজ করতাম। সব মিলিয়ে কিছু অভিজ্ঞতা হল , তারপর প্রতিদিন রাতে ইউটিউবে ভিডিও দেখতে দেখতে শিখলাম যে ইউটিউবিং একটা ক্যারিয়ার হতে পারে যেখানে আমি ভিডিও বানানোর পাশাপাশি টাকাও আয় করতে পারবো। যদিও তখন বাংলাদেশে ইউটিউবের আইডিয়া খুব একটা উন্নত ছিলনা, তাও আমি নানান রকম ভিডিও মেক করা শুরু করি আর সেটা ইউটিউবে দেয়া শুরু করি একটা সময় দেখি সেখান থেকে খুব ভালো একটা ইনকাম আমার চলে আসলো তখন ভাবলাম ইউটিউব প্লাটফর্ম টা তো আমার একার না আমি তো চাইলেই পারি আমাদের দেশের বেকার ছেলেদের ইউটিউবে কাজ সেখাতে তখন সবাইকে কাজ শেখানোর জন্য আমি একটা ইউটিউব চ্যানেল করি আর সেটার নাম দেই ‘TechBanglaPro’ , আর এখান থেকে শুরু হয় আমার বাংলাদেশ থেকে বেকারত্ব দুর করার কাজ । জানিনা না কতো টুকু সফল হয়েছি কিন্তু আমি প্রতিদিন নতুন নতুন ভিডিও দিয়ে নতুন ইউটিউবার দের পাশে দাঁড়াই যেন তারা ভালো কাজ করে নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে ।
এখন বাংলাদেশে আনুমানিক ৬০০ এর বেশি বেকার ছেলে আমাদের কাছে থেকে কাজ শিখে তারা আজ নিজের পায়ে দাঁড়িয়েছে ।

 

 

 

 

আপনার ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে কিছু বলুন?

ডিপ্লোমা শেষ করলাম কিছুদিন আগে খুলনা সুন্দরবন কলেজ থেকে এখন বি,এস,সি করছি ঢাকা গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে । আমি খুব খুব সাধারণ একটা ছেলে নিজেকে ও তাই মনে করি । আমি সবকিছু পজিটিভ মনে করি । নেগেটিভ কোন কিছুই আমার ভাল ওলাগে না তাছাড়া আমি আমার ফ্যামিলির একমাত্র ছেলে।

‘টেকবাংলা ‘ নিয়ে কি ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা?
‘টেকবাংলা ‘ মাধ্যমে বাংলাদেশকে বেকারত্ব দুর করাই আমার ভিশন।

নতুন ইউটিউবারদের কি পরামর্শ দিবেন?

অতি মূল্যবান কিছু পরামর্শ দিবো আজ।
১। প্রতিনিয়ত ভিডিও বানাতে হবে। অনেক দেরিতে ভিডিও আপলোড করলে চ্যানেল এর উপর  বিভিন্ন প্রভাব পড়ে।
২। দর্শক কে নিয়ে ভাবা খুব জরুরি। তাঁরা যা দেখতে চায় তার উপর বেশি ভিডিও বানাতে হবে।
৩। ভিডিওতে ডিসলাইক আসলে মন খারাপের কিছু নেই। ভুল গুলো বুঝে পরের ভিডিও নিয়ে ভাবতে হবে।
৪ । যদি কোথাও কোন সমস্যা হয় আমাদের জানাতে পারেন অথবা আমাদের চ্যানেল TechBangnlapro ফলো করতে পারেন । আশা করি আপনার সকল সমস্যার সমাধান পাবেন ।